News

ডিবির হেফাজতে একজনের মৃত্যু

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের হেফাজতে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে, যাকে এক প্রবাসী নিখোঁজের ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য একদিন আগে ধরে আনা হয়েছিল বলে কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

মো. আসলাম (৪৫) নামে ওই ব্যক্তির বিস্তারিত পরিচয় জানা যায়নি। মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের পশ্চিম বিভাগের হেফাজতে ছিলেন তিনি। ডিবির একজন কর্মকর্তা রোববার সন্ধ্যা পৌনে ৬টার দিকে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনলে চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন বলে মেডিকেল পুলিশ ফাঁড়ির এসআই মো. বাচ্চু মিয়া জানান। আসলামকে ঢাকা মেডিকেলে নেওয়া ডিবির পরিদর্শক মো. মাহবুব হাসপাতালে সাংবাদিকদের বলেন, আসলাম অসুস্থ হয়ে পড়লে শনিবার তাকে রাজারবাগে পুলিশ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছিল। “রোববার ঢাকা মেডিকেলে আনার পর চিকিৎসক তার কয়েকটি পরীক্ষা করতে বলেন। পরীক্ষা শেষে আবার আনলে মৃত বলে জানান।” ঢাকার শাহআলী থানার ওসি আনোয়ার হোসেন বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, গত ২৬ এপ্রিল মিরপুর থেকে নিয়ামুল হোসেন (২২) নামে একজন মালয়েশিয়া প্রবাসী নিখোঁজ হন। এখানে বোনের বাসায় বেড়াতে এসে তিনি নিখোঁজ হন জানিয়ে নাজমুল নামে তার বড় ভাই একটি জিডি করেন। থানা পুলিশের পাশাপাশি গোয়েন্দা পুলিশও এ ঘটনার তদন্ত করছিল বলে জানান তিনি। ওই ঘটনায় ‘বেশ কিছু তথ্য-প্রমাণের’ ভিত্তিতে শনিবার আসলাম ও তার এক চাচাত বোনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মিন্টো রোডে ডিবি কার্যালয়ে আনা হয় বলে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার দেবদাস ভট্টাচার্য জানান। তিনি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের পর আসলামকে রেখে তার ওই বোনকে চলে যেতে বলা হয়। আসলামের হার্নিয়া সমস্যা ছিল। শনিবার তার শারীরিক সমস্যা দেখা দিলে তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। রোববার বিকালে তার মৃত্যু হয়।” প্রবাসী নিখোঁজ হওয়ার পর তার ভাইয়ের মোবাইলে ফোন করে এক লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করা হয়েছিল বলেও জানান তিনি। আসলামের মরদেহ ঢাকা মেডিকেল কলেজের মর্গে রয়েছে।  পুলিশ হেফাজতে মৃত্যুর বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের গণমাধ্যম শাখার উপ-কমিশনার মো. মাসুদুর রহমান বলেন, “পুরো বিষয়টি আইন মেনে তদন্ত করা হবে।”

Leave a Reply

*

*